নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির (ইডিইউ) বিশেষায়িত স্নাতকোত্তর প্রোগ্রাম মাস্টার অব পাবলিক পলিসি এন্ড লিডারশিপ (এমপিপিএল) এর প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকদের এক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নগরীর নাসিরাবাদ এলাকায় অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাসে এই মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম ও এর আশপাশের অঞ্চলে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা ও ইডিইউর নিয়মিত শিক্ষকগণ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত এ মিলনমেলায় সরাসরি যোগ দেন। দেশের বাইরে অবস্থানরত শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষার্থীরা অনলাইনে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইডিইউর প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান। তিনি বলেন, এ মাস্টার্স প্রোগ্রামে যেকোন ক্ষেত্রে কর্মরতদের বর্তমান সময়ের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সক্ষম করে তুলতে জোর দেয়া হচ্ছে। ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মরতদের মাঝে নৈতিক ও উদ্ভাবনী নেতৃত্ব গড়ে তোলার পাশাপাশি দক্ষতার সাথে প্রতিষ্ঠান পরিচালনার অভিজ্ঞতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের এতে যুক্ত করা হয়েছে। তাই এতে শুধুমাত্র প্রাতিষ্ঠানিক কাজের অভিজ্ঞতাপ্রাপ্ত ও কর্মরতদেরই পড়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

উপাচার্য অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান বলেন, বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষা পর্যায়ে এক নতুন মাত্রা যোগ করেছে এমপিপিএল। ইন্ডাস্ট্রিকে উন্নত করে একাডেমি। ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির এ প্রোগ্রামটিকে সাজানো হয়েছে ইন্ডাস্ট্রির কথা মাথায় রেখে। ফলে, সরকারি-বেসরকারি সংস্থায় কর্মরতদের মাঝে আধুনিক ও যুগোপযোগী অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ জ্ঞান প্রদান করা হচ্ছে যাতে তারা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও প্রসারে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার সজল কান্তি বড়ুয়া, মাস্টার অব পাবলিক পলিসি এন্ড লিডারশিপ প্রোগ্রামের চেয়ারম্যান ও স্কুল অব বিজনেসের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মু. রকিবুল কবির, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মু. নাজিম উদ্দিন, প্রক্টর ও সহকারী অধ্যাপক মু. আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

পলিসি নির্ধারণ ও প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় দক্ষ ও বহুমাত্রিক নেতৃত্বের গুরুত্ব উপলব্ধি করে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জনপ্রিয় দুটো পৃথক প্রোগ্রাম পাবলিক পলিসি ও লিডারশিপকে সমন্বয় করে গবেষণাধর্মী এ স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামটি শুরু হয় ইডিইউতে। বিশেষায়িত এ প্রোগ্রামে পড়ছেন বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মরত ব্যক্তিবর্গ। শিক্ষক হিসেবে নিয়মিত শিক্ষকদের বাইরেও বিশ্বের প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অভিজ্ঞ অধ্যাপক ও গবেষকগণ এতে পড়াচ্ছেন।

আরও খবর