মহামারী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে সারাদেশের ক্রীড়াঙ্গন যখন থমকে আছে সেই মার্চ মাস থেকে তখনই ‘সাহসিকতার’ পরিচয় দিয়ে ফুটবল টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ালো চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা (সিজেকেএস)। করোনার ঝুঁকি নিয়ে শুক্রবার (৯ অক্টোবর) চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে মুজিব শতবর্ষ ফুটবল টুর্নামেন্ট নামের ফুটবল যজ্ঞটি শুরু করে।

টুর্নামেন্ট শুরুর আগে আয়োজক কমিটি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনে দর্শকবিহীন মাঠে খেলাসমূহ অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু উদ্বোধনের দিন দেখা গেল ভিন্ন চরিত্র। দর্শকদের জন্য উম্মুক্ত ছিল গ্যালারি। সেখানে আগতদের অধিকাংশরই ছিল না মাস্ক। গাদাগাদি পরিবেশ ছিল ভিআইপি গ্যালারি থেকে শুরু করে দক্ষিণের সাধারণ গ্যালারিও।

এসব বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে মুজিব শতবর্ষ ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রধান সমন্বয়ক দিদারুল আলম চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, ‘দর্শকবিহীন ফুটবল খেলা আসলে জমে না। ফাইনালে এতো দর্শক হবে জায়গা দেয়া যাবে না।’ করোনা ঝুঁকি এড়াতে বিশ্বের কোথাও এখন দর্শকদের মাঠে প্রবেশের অনুমতি না থাকলেও চট্টগ্রামে কীভাবে দিলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা দর্শকদের বলেছি মাস্ক ছাড়া ঢুকতে পারবে না। তারপরও বেশি ঝুঁকিপূর্ণ মনে হলে আমরা বিকল্প চিন্তা করব।’

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় খেলার মাঠে বক্তৃতাবাজিতে এক ঘণ্টা সময় নষ্ট করে উদ্বোধন হওয়া টুর্নামেন্টে শুভসূচনা করেছে আবু তাহের পুতু একাদশ। তারা ৩-১ গোলে রফিক আহমদ চৌধুরী একাদশকে পরাজিত করে করে। বিজয়ী দলের রহিম, রুম্মান ও ফাহিম এবং রফিক আহমেদ চৌধুরী একাদশের সায়মন গোল করেন।

এর আগে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে আলোর ফোয়ারায় বেলুন উড়িয়ে মুজিব জন্মশতবর্ষ ফুটবল টুর্নামেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ এমপি। সিডিএফএ এর সাধারণ সম্পাদক ও সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য আ ন ম ওয়াহিদ দুলালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য ও সাংগঠনিক কমিটির সদস্য-সচিব মোহাম্মদ শাহজাহান। বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আলী আব্বাস, টুর্নামেন্ট সাংগঠনিক কমিটির চেয়ারম্যান ও উপ-পুলিশ কমিশনার মেহেদী হাসান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) চট্টগ্রাম ও সিজেকেএস এর সহ-সভাপতি মো. আবু হাসান সিদ্দিক, সাংগঠনিক কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী, সিজেকেএস সহ-সভাপতি দিদারুল আলম চৌধুরী ও এ কে এম এহসানুল হায়দার চৌধুরী (বাবুল), চট্টগ্রাম ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি এসএম শহীদুল ইসলাম, সিজেকেএস যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মো. মশিউর রহমান চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ শাহাবুদ্দীন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, সিডিএফএ এর সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম লেদু ও মো. তাহের-উল-আলম চৌধুরী স্বপন, সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য জহির আহমেদ চৌধুরী, এ কে এম আবদুল হান্নান আকবর, মোহাম্মদ ইউসুফ, গোলাম মহিউদ্দীন হাসান, অহীদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন, মো. জমির উদ্দীন (বুলু), নাসির মিঞা, প্রদীপ কুমার ভট্টাচার্য্য, মো. হারুন আল রশীদ, রেখা আলম চৌধুরী, রেজিয়া বেগম ছবি, মনোরঞ্জন দে।

খেলার শুরু থেকেই দু’দল আক্রমন-পাল্টা আক্রমনের মাধ্যমে ম্যাচটিকে উপভোগ্য করে তোলে। তবে গোলের খেলা ফুটবল-এতে যারা মুন্সিয়ানা দেখাতে পারে তারাই বেশি সফল হয়। প্রথম গোল খাওয়ার পর গোলশোধের সহজ সুযোগ পেয়েছিল রফিক আহমদ চৌধুরী একাদশ। কিন্তু অধিনায়ক সজীব পেনাল্টি কিক পুতু একাদশের গোলরক্ষক সোহেল ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ধরে ফেলেন। পরে আবু তাহের পুতু একাদশের মানিকের শট ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে।

ম্যাচের শেষ ১০ মিনিট গোল শোধের জন্য প্রতিপক্ষের উপর প্রচন্ড চাপ সৃষ্টি করে রফিক আহমদ চৌধুরী একাদশ। কিন্তু দুর্বল ফিনিশিং এর কারণে গোল পায়নি তারা। উল্টো খেলার ইনজুরি টাইমে গোলরক্ষককে কাটিয়ে গাল করে ব্যবধান ৩-১ করেন বদলী হিসেবে খেলতে নামা ফাহিম উদ্দিন সোহেল। ফলে নূরনবী লিটনের আবু তাহের পুতু একাদশের কাছে পরাজয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করতে হয় আবদুর রশিদ লোকমানের রফিক আহমদ চৌধুরী একাদশকে।

এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে শনিবার (১০ অক্টোবর) বিকাল ৫টায় খেলায় অংশগ্রহণ করবে ডা. কামাল এ খান একাদশ এবং এস এম কামাল উদ্দিন একাদশ।

আরও খবর