চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর হামিদচর এলাকা থেকে গাঙ্গেয় ডলফিনের একটি মৃত ছোট বাচ্চা উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (১ আগস্ট) বিকেলে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে বনবিভাগের সহায়তায় মৃত বাচ্চাটি উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, জেলেদের জালে আটকা পড়ে ডলফিনটি মারা গেছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরির সমন্বয়ক প্রফেসর ড. মনজুরুল কিবরিয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, ডলফিনের ছোট বাচ্চাটির বয়স আনুমানিক এক বছর, দৈর্ঘ্য ৩ ফুট ৫ ইঞ্চি।

তিনি বলেন, ডলফিনটির প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদন করা হয়েছে। ডলফিনটির দেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। উপস্থিত সবার সঙ্গে কথা বলে ধারণা করছি, জেলেদের জালে আটকে ডলফিনটি মারা গেছে। ডলফিনটি সংরক্ষণের জন্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এর আগে ১৫ জুলাই চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার কর্ণফুলী নদীর ছন্দারিয়া খাল থেকে একটি মরা ডলফিন উদ্ধার করা হয়েছিল। এছাড়া ৬ জুলাই চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানার চানখালী এলাকায় হালদা নদীতে মরে ভেসে উঠেছিল বিপন্ন প্রজাতির একটি ডলফিন। দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদায় বর্তমানে ১২৭টির মতো ডলফিন রয়েছে। ২০১৮ সালে হালদায় ডলফিন ছিল ১৬৭টি।

২০১৭ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত হালদায় ২৯টি ডলফিনের মৃত্যু হয়েছে। ডলফিন স্থানীয়ভাবে উতোম বা শুশুক হিসেবে পরিচিত। সাধারণত দূষণমুক্ত পরিষ্কার পানিতে এরা বিচরণ করে।

আরও খবর