বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটিজিক স্ট্যাডিসের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. এমদাদ উল বারী’কে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কোর অব সিগন্যালস্ এর ‘৯ম কর্নেল কমান্ড্যান্ট’ হিসেবে অভিষিক্ত করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর ঐতিহ্য ও রীতি অনুযায়ী কর্নেল কমান্ড্যান্ট একটি অত্যন্ত গৌরবময় এবং মর্যাদাপূর্ণ স্বীকৃতি।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিগন্যাল ট্রেনিং সেন্টার এন্ড স্কুল (এসটিসিএন্ডএস) এর ব্যবস্থাপনায় সিগন্যাল কোরের ৯ম কর্নেল কমান্ড্যান্ট অভিষেক যশোর সেনানিবাসে বুধবার (৩ মার্চ) অনুষ্ঠিত হয়।

মেজর জেনারেল মো. এমদাদ উল বারী অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছালে সিগন্যালস কোরের একটি চৌকষ দল তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরবর্তীতে সিগন্যালস কোরের জ্যেষ্ঠ অধিনায়ক এবং জ্যেষ্ঠ সুবেদার মেজর ৯ম কর্নেল কমান্ড্যান্ট’কে সিগন্যাল কোরের ‘কর্নেল কমান্ড্যান্ট’ এর র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেন।

নবনিযুক্ত কর্নেল কমান্ড্যান্ট অনুষ্ঠানে উপস্থিত সামরিক সদস্যবৃন্দের উদ্দেশ্যে তাঁর বক্তব্যের শুরুতেই শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যার একক নেতৃত্বে সূচিত হয়েছিল আমাদের মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম। একই সাথে তিনি স্মরণ করেন ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী সিগন্যাল কোরের বীর সেনানীসহ সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের।

তিনি তাঁর বক্তব্যে আধুনিক যোগাযোগ, যোগাযোগ নিরাপত্তা, তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়ন ও গবেষণার উপর গুরুত্ব উল্লেখপূর্বক সিগন্যাল কোরের সকল সদস্যদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবার জন্য দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন এরিয়া কমান্ডার, যশোর এরিয়া, সেনাসদর সিগন্যাল পরিদপ্তর এর পরিচালক, কমান্ড্যান্ট এসটিসিএন্ডএস, সিগন্যালস্ কোরের অধীনস্থ সকল ইউনিটের অধিনায়ক ও সদস্যবৃন্দ এবং যশোর এরিয়ার সামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ।

উল্লেখ্য সিগন্যাল কোরের ৯ম কর্নেল কমান্ড্যান্ট এর অভিষেক হওয়ায় উক্ত কোরের ইতিহাসে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো।

আরও খবর