চট্টগ্রামে গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন মোট ১ লাখ ৪৫ হাজার ৬৭৯ জন। এরমধ্যে নগরে ৩৬ হাজার ৭৩৫ আর ১৪ উপজেলায় ১ লাখ ৮ হাজার ৯৪৬ জন টিকা নিয়েছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৭৫ হাজার ৪১৪ এবং নারী ৭০ হাজার ১৯৮ জন।
এরআগে গত ৭ আগস্ট নগরে ৩৭ হাজারের বেশি আর উপজেলায় প্রায় ১ লাখ ২১ হাজার মানুষ গণটিকার প্রথম ডোজ পান।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে চসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আক্তার চৌধুরী ও জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সারাদেশের মতো চট্টগ্রামজুড়েও এই কার্যক্রম শুরু হয়। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ব্যবস্থাপনায় ৪১ ওয়ার্ডের ১২৩টি কেন্দ্রে ও উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়েও টিকাদান সম্পন্ন হয়।

সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডের তিনটি কেন্দ্রে টিকাদানের ব্যবস্থা করা হয়। প্রতি ওয়ার্ডের ৩টি কেন্দ্রে ৩০০টি করে মোট ৯০০টি টিকা দেওয়া হয়। এছাড়া প্রতি ইউনিয়নে একটি করে এদিন গণটিকা দেওয়া হয়।

চট্টগ্রামের বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, আগে পরিচালিত কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইনে যে সব নাগরিক ১ম ডোজ গ্রহণ করেছেন শুধু তাদের একই কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে ২য় ডোজ গ্রহণ করবেন। ক্যাম্পেইনের অধীনে ৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ও ৮ সেপ্টেম্বর বুধবার যাদের ২য় ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণের তারিখ রয়েছে তাদের ৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

আগামী ৯ ও ১০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতি ও শুক্রবার যাদের ২য় ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণের তারিখ রয়েছে তাদের আগামী ৮ সেপ্টেম্বর বুধবার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। সর্বোপরি ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর শনি ও রোববার যাদের ২য় ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণের তারিখ রয়েছে তাদের আগামী ৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হবে।

তিনি ১ম ডোজ গ্রহণে কেন্দ্রে ভিড় না করার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

আরও খবর