নগরীর মেহেদিবাগ সরকারি কলোনি ও পশুশালার মাঝের খালে ভাসছিল এক নবজাতকের লাশ। খবর পেয়ে চকবাজার থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। ময়নাতদন্ত শেষে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামের মাধ্যমে দাফন করা হবে।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফেরদৌস জাহান।

তিনি বলেন, রাত সোয়া ১১টায় খবর পেয়ে মেহেদীবাগ সরকারি কলোনি সংলগ্ন খাল থেকে আমরা নবজাতকটির লাশ উদ্ধার করেছি। সুরতহাল শেষে লাশটি চমেক হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। আইনি প্রক্রিয়া শেষে আমার লাশটি আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামে হস্তান্তর করবো।

মেহেদীবাগ সরকারি কলোনির সভাপতি ও অডিট এন্ড একাউন্ট বিভাগের কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান বলেন, আমাদের কলোনির নিরাপত্তা কর্মীরা টহল দেওয়ার সময় খালে কোন কিছু ছিল না। রাতে আবার টহল দেওয়ার সময় সাদা বস্তু দেখে টর্চের আলো ফেলে লাশটি দেখে।

তিনি আরও জানান, খালের তলদেশে গাছের ভাঙ্গা ডাল-পালা জাতীয় কিছু একটা ছিল। সেটাতে শিশুটির গর্ভনাড়ী আটকে ছিল। আমি এবং কলোনির সাধারণ সম্পাদককে বিষয়টি তারা জানায়। থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।

আরও খবর