চট্টগ্রামে আবারও ছোবল দিয়েছে করোনা। তাতে করে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো চট্টগ্রামের ১১ করোনা রোগীর প্রাণ কেড়ে নিল করোনা। তবে এদিন আগের দিনের তুলনায় কমেছে শনাক্ত। চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩৮ জনের। এর মধ্যে নগরে ২২৬ এবং উপজেলা পর্যায়ে ১১২ জন।

এ নিয়ে চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৯৫ হাজার ৮৫৪ জন। তাদের মধ্যে ৭০ হাজার ২৮০ জন চট্টগ্রাম নগরীর। বাকি ২৫ হাজার ৫৭৪ জন চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক হাজার ১৫০ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ৬৫৮ জন চট্টগ্রাম নগরীর, বাকি ৪৯২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

বুধবার (১৮ আগস্ট) সকালে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ১১টি ল্যাবে দুই হাজার ১৮টি নমুনা পরীক্ষায় ৩৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

উপজেলা পর্যায়ে লোহাগাড়ায় ৭ জন, সাতকানিয়ায় ৬ জন, বাঁশখালী ৩ জন, আনোয়ারা ২ জন, চন্দনাইশ ০ জন, পটিয়া ৮ জন, বোয়ালখালী ১ জন, রাঙ্গুনিয়া ০ জন, রাউজান ১৩ জন, ফটিকছড়ি ২৬ জন, হাটহাজারী ৩৩ জন, সীতাকুণ্ড ৪ জন, মিরসরাই ৬ জন এবং সন্দ্বীপে ৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

তার মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে ১৮ জনকে করোনার জীবাণুবাহক হিসেবে শনাক্ত করা হয়। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৭৪১টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০০ জনের শরীরে করোনার জীবাণুর অস্থিত্ব পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ২৭৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে ৩৬ জনের নমুনায় করোনা পজিটিভ আসে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ২৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। আরটিআরএল ল্যাবে ১৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া এদিন বিভিন্ন ল্যাবে ১১৬টি অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বেসরকারি ল্যাবগুলোর মধ্যে ইমপেরিয়াল হাসপাতালে ১৯০টি নমুনা পরীক্ষায় ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শেভরন হাসপাতাল ল্যাবে ১৭৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১৯ জনের পজিটিভ আসে। চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতলে ৩৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে ৬ জনের দেহে ভাইরাসটির জীবাণু পাওয়া যায়। মেডিক্যাল সেন্টার হাসপাতালে ৫৩টি নমুনা পরীক্ষায় ২০ জনের করোনা শনাক্ত হয় এবং ইপিক হেলথ কেয়ারে ৭২টি নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজে চট্টগ্রামের ২৩টি নমুনা পরীক্ষা করে দুই জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আরও খবর