প্লাষ্টিকের ক্যারেট ভর্তি পিকআপে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম শহরে আসছিলো দেড় কোটি টাকার ইয়াবা। কিন্তু র‍্যাব তার আগেই ইয়াবা ব্যবসায়ীদের এই চালান কব্জায় নিয়ে নিল।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) বিকাল চারটার দিকে চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানার শাহ আমানত সেতুর সংযোগ সড়ক থেকে ৪৬ হাজার ৭৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করলো র‍্যাব। যার আনুমানিক মুল্য প্রায় দেড়কোটি টাকা। এ সময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত পিকআপ ভ্যানটি জব্দ করা হয়। গ্রেফতার করা হয় মাদক পরিবহন ও বিক্রয়ে জড়িত আবু ছিদ্দিক (২৯) ও বেলাল উদ্দিন (২০) নামে দুইজনকে।

আটককৃত আসামী ছিদ্দিক কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানার বাহারছড়ার মৃত কবির আহাম্মদের ছেলে ও বেলাল কক্সবাজার জেলার উখিয়া থানার বাইলাখালী এলাকার মো. জমির আহম্মদের ছেলে।

র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, একটি পিকআপ ভ্যানে বিপুল পরিমান ইয়াবা কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামে আসছে এমন খবরের ভিত্তিতে শাহ আমানত সেতু সংযোগ সড়ক এলাকায় চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করা হয়।

এ সময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা একটি পিকআপের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা পিকআপটিকে থামানোর সংকেত দেয়। পিকআপটি র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে থামে। কিন্তু চালক ও হেলপার গাড়ি থেকে নেমে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। র‌্যাব সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে আটক করে। তাদের তথ্য অনুযায়ী পিকআপে থাকা প্লাস্টিকের ক্যারেটের মধ্যে ট্রাভেল ব্যাগের ভিতর সুরক্ষিত অবস্থায় ৪৬ হাজার ৭৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বাকলিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও খবর