করোনার কারণে এবারও জন্মাষ্টমীর মহাশোভাযাত্রা আয়োজন করা হচ্ছে না চট্টগ্রামে। মহাশোভাযাত্রা বাদ দিয়ে ধর্মীয় বিধি মেনে মন্দিরে পূজা, গীতাপাঠ ও প্রার্থনার মধ্য দিয়েই অনুষ্ঠিত হবে এবারের জন্মাষ্টমী উদযাপন।

রোববার (২৯ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন এ তথ্য দেন।

৩৮ বছর ধরে চট্টগ্রামে জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপন করা হচ্ছে জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবছর জন্মাষ্টমী মহাশোভাযাত্রার খরচের অর্থ দিয়ে সারাদেশের মহানগর, জেলা ও উপজেলায় অসহায় মানুষ এবং অনাথালয়ে খাদ্যসামগ্রী, শিক্ষা সামগ্রী ও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।

তবে মহাশোভাযাত্রা না হলেও চট্টগ্রামে অনাড়ম্বরভাবে তিনদিনব্যাপী জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপন করা হবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুকুমার চৌধুরীর পক্ষ থেকে জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সুহৃদ অমিত চৌধুরী বলেন, সোমবার (৩০ আগস্ট) সকাল ১০টায় বিভিন্ন মঠ-মন্দির ও আশ্রমে দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হবে। জেএমসেন হলে কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম রামকৃষ্ণ মিশনের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ শক্তিনাথানন্দ মহারাজ। প্রধান অতিথি থাকবেন সাবেক চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। প্রধান আলোচক থাকবেন অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত।

একইদিন বিকাল ৫টায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। প্রধান আলোচক থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। সন্ধ্যা ৭টায় মহাস্নান ও অভিষেক শেষে পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকাল থেকে ধর্মীয় অনুষ্ঠানাদি শেষে বিকাল ৫টায় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন চসিক মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী। প্রধান আলোচক থাকবেন সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) পূজানুষ্ঠান, প্রসাদ বিতরণ, শ্রীমদ্ভাগবত পাঠ, নামকীর্তনের মধ্যদিয়ে শেষ হবে উৎসব।

প্রাকৃতিক দুর্যোগে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে দুর্গত এলাকায় জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে বলেও এসময় জানান জন্মাষ্টমী পরিষদের নেতারা। তারা বলেন, সামাজিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক অপশক্তির সহিংসতার বিরুদ্ধেও বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে এই সংগঠন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সুজিত কুমার বিশ্বাস, সাধন ধর, বিমল দে, লায়ন আশীষ কুমার ভট্টাচার্য্য, লায়ন তপন কান্তি দাশ, অধ্যাপক অর্পণ ব্যানার্জি, রতন আচার্য্য, সুমন দেবনাথ, শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, অমিত চৌধুরী, এস প্রকাশ পাল, লায়ন ডা. বিধান মিত্র, আশীষ চৌধুরী, সজল দত্ত, নিউটন কান্তি দে প্রমুখ।

আরও খবর