প্রথম ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার (কোভিশিল্ড) দেয়ার পর দ্বিতীয় ডোজের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন লক্ষাধিক মানুষ। অবশেষে রোববার (৮ আগস্ট) সকাল থেকেই দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। প্রথম ডোজ টিকা যে কেন্দ্র থেকে নেওয়া হয়েছে, দ্বিতীয়টিও একই কেন্দ্র থেকে নিতে হবে।

গত ৩১ জানুয়ারি চট্টগ্রামে ৪ লাখ ৫৬ হাজার ডোজ কোভিশিল্ড আসার পর ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনার টিকাদান শুরু হয়। এরপর ৯ এপ্রিল পাওয়া যায় ৩ লাখ ৬ হাজার ডোজ। সর্বশেষ ৬ আগস্ট আসে ১ লাখ ৮ হাজার ডোজ। টিকা না আসায় নিবন্ধিত ১ লাখ ৫ হাজার ৪২৫ জন ১ম ডোজ নিয়েও ২য় ডোজ দিতে পারেননি।

৬ আগস্ট চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের অন্যান্য টিকার সঙ্গে আসে ১ লাখ ৮ হাজার ডোজ কোভিশিল্ড। ফলে ১ম ডোজ নেওয়ার পর চার মাস ধরে ২য় ডোজের অপেক্ষায় থাকা লাখো টিকাগ্রহীতার অপেক্ষা শেষ হলো।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজ টিকাদানের জন্য আলাদা সময়সূচি নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। যেহেতু সিটি করপোরেশন এলাকায় মডার্নার টিকা ও ইউনিয়নে সিনোফার্মের টিকা দেওয়া হচ্ছে, সেহেতু আলাদা বুথে এই টিকা দেওয়া হবে। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে বিকাল ৩টা থেকে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ২য় ডোজ টিকা দেওয়া হবে। একমাস টিকাদান কার্যক্রম চলবে।

সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ২য় ডোজ যারা পাননি, তাদেরকেই এই টিকাগুলো দেওয়া হবে। যারা ইতিমধ্যে ২য় ডোজের জন্য এসএমএস পেয়েছেন, কিন্তু টিকা পাননি, তারা ওই এসএমএস দেখিয়ে ২য় ডোজ টিকা নিতে পারবেন। যারা প্রথম ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন, তাদের ২য় ডোজে অন্য কোনো কোম্পানির টিকা নেওয়া যাবে না।

আরও খবর