সীতাকুণ্ডের জঙ্গল সলিমপুরে ৩ হাজার ১০০ একর সরকারি খাসরজমি পাহাড় এবং টিলা কেটে ভূমিদস্যু ও সন্ত্রাসীরা অবৈধ বসতি স্থাপন করছে। শুধুমাত্র ভূমি দখলের উদ্দেশ্যে এখানে আর কোনো অবৈধ স্থাপনা করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত জঙ্গল সলিমপুরে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

মমিনুর রহমান বলেন, সরকার একটি মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। যেটুকু পাহাড় কাটা হয়েছে সেটুকুতেই মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। বাকি পাহাড়ের পরিবেশ প্রতিবেশ অক্ষুন্ন রাখা হবে। আগামী এক মাসের মধ্যে বনজ ফলজ দুই লাখ গাছ লাগানো হবে এখানে। এটি উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এখানে আন্তর্জাতিকমানের হাসপাতাল, তথ্য কেন্দ্র, কারাগার ও সাফারি পার্কসহ সরকারের নানান স্থাপনা বাস্তবায়ন করা হবে। তাছাড়া এখানে যারা ভূমি দখল করে ব্যবসা করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো। যারা পাহাড় কেটে অবৈধভাবে বসবাস করছে তাদের আগামী এক মাসের মধ্যে সরিয়ে নেওয়া হবে। যারা প্রকৃত ভূমিহীন ও গরীব তাদেরকে আমরা খুব দ্রুত সরিয়ে নিয়ে পুর্নবাসন করবো। পরিবেশ এখানে চারটি মামলা করেছে।

আরও খবর