জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে এবং মুসলমানদের মাঝে ইসলামের মৌলিক শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন মসজিদে পুলিশ কর্মকর্তারা আলোচনা করেছেন।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) জুমার নামাজের আগে শতাধিক মসজিদে আগত মুসল্লিদের উদ্দেশে পুলিশ কর্মকর্তারা আলোচনা রাখেন বলে জানান সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণসংযোগ) আরাফাতুল ইসলাম।

সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীরের নির্দেশে নগরজুড়ে শতাধিক মসজিদে সিএমপির থানাগুলোর ওসি, ৯৬টি বিট কর্মকর্তাগণ জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সচেতনতামূলক আলোচনা করেছেন।

আলোচনায় পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। একজন মুসলমানের কাছে অপর মুসলমান যেমন নিরাপদ, তেমনি নিরাপদ অন্য সকল ধর্মের মানুষ। মানুষ হত্যা কোন ধর্মই সমর্থন করে না। কিছু সংখ্যক গোষ্ঠী রাজনৈতিক ফায়দা নেওয়ার আশায় ধর্মকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে ধর্মের অপব্যাখ্যার মাধ্যমে সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে ব্যস্ত রয়েছে। এতে সমাজ ও রাষ্ট্র উভয়েই ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

প্রসঙ্গত, জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ত ব্যক্তিরা বিভিন্ন সময় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়ে তাদের আফগানিস্তান কানেকশনের কথা আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে স্বীকার করেছে। সম্প্রতি আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থানে প্রশাসন সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। আগ থেকে সিএমপির ওসিদের মসজিদভিত্তিক এই কার্যক্রম আবারও জোরদার হলো।

পুলিশ কর্মকর্তারা এই অপতৎপরতা রুখতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সামাজিকভাবে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আরও খবর