আবারও পানির দাম বাড়াচ্ছে চট্টগ্রাম ওয়াসা। বাণিজ্যিকে প্রতি ইউনিটে ৫ টাকা ১৮ পয়সা আর আবাসিকে প্রতি ইউনিটে বাড়ানো হচ্ছে ৪ টাকা ৯৮ পয়সা। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে নতুন এ দাম কার্যকর হবে।

বর্তমানে প্রতি ইউনিটের জন্য চট্টগ্রাম ওয়াসার আবাসিক গ্রাহকদের জন্য ১৩ দশমিক ০২ টাকা গুনতে হয়। ৪ দশমিক ৯৮ টাকা বাড়লে এক ইউনিটের জন্য গ্রাহককে ১৮ টাকা দিতে হবে। এ ছাড়া বর্তমানে বাণিজ্যিকের প্রতি ইউনিট পানির দাম ৩১ টাকা ৮২ পয়সা। ৫ দশমিক ১৮ টাকা বাড়লে তা ৩৭ টাকা হবে।

চট্টগ্রাম ওয়াসা সূত্রে জানা গেছে, আইন অনুযায়ী প্রতি বছর ৫ শতাংশ হারে পানির দাম বাড়াতে পারে কর্তৃপক্ষ। এ ক্ষেত্রে বোর্ড সদস্যদের অনুমোদন নিতে হয়। আর ৫ শতাংশের বেশি বাড়াতে চাইলে নিতে হয় সরকারের অনুমোদন।

সম্প্রতি আবাসিকে ও বাণিজ্যিকে পানির দাম বাড়ানোর জন্য সরকারের কাছে ওয়াসা কর্তৃপক্ষ অনুমোদন চায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২৭ জুলাই স্থানীয় সরকার বিভাগের পাস-২ শাখা থেকে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানির দাম বাড়ানোর বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি হয়।

সিনিয়র সহকারী সচিব এ.কেএম সাইফুল আলমের সই করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পানি সরবরাহ ও পয়োনিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ আইন, ১৯৯৬ এর ২২ (১) ও ২২ (৩) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃক সরবরাহকৃত প্রতি এক হাজার লিটার পানির অভিকর আবাসিক ১৩ দশমিক ০২ টাকার স্থলে ১৮ টাকা এবং অনাবাসিক ৩১ দশমিক ৮২ টাকার স্থলে ৩৭ টাকা নির্ধারণের সরকারি অনুমোদন নির্দেশক্রমে জ্ঞাপন করা হলো। সংশোধিত অভিকর কার্যকর করার ক্ষেত্রে আইনের ২৩ নং ধারা অনুসরণ করতে হবে।

বুধবার (৩ আগস্ট) চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম ফজলুল্লাহ বলেন, পানির উৎপাদনে বর্তমানে খরচ বাড়ছে। অপরদিকে সরকার থেকে বলা হচ্ছে, আর ভর্তুকি দেওয়া হবে না। এ ছাড়া আগামী বছর থেকে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হবে। তাই পানির দাম বাড়াতে হচ্ছে।

তবে কবে থেকে পানির দাম বাড়ানো হবে, সে বিষয়ে তিনি সরাসরি কোনো কিছু বলতে চাননি।

ওয়াসা সূত্র জানায়, বর্তমানে ওয়াসার আবাসিক গ্রাহক সংযোগ আছে ৭৮ হাজার ৫৪২টি ও বাণিজ্যিক সংযোগ সংখ্যা ৭ হাজার ৭৬৭টি। এর আগে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে পানির দাম বাড়ানো হয়েছিল।

আরও খবর