নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে সাইফুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের উপজেলার সন্তুশপুর এলাকার আবদুল মান্নানের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকালে সোনারগাঁও পৌরসভার খাসনগর দীঘিতে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়।

সাইফুল তিন বছর ধরে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে খাসনগর দীঘিপাড় এলাকার রতন মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

নিহত সাইফুলের স্ত্রী আঁখি নূর আক্তার বলেন, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে পিয়াল নামে এক যুবক তার স্বামীকে ফোন করে ডেকে নেন। যাওয়ার সময় স্বামী বলে যান, বাইরে সমস্যা হতে পারে। সমস্যা হলে তাকে মুঠোফোনে জানাবেন। এরপর থেকেই সাইফুল নিখোঁজ ছিলেন।

কারও সঙ্গে তার স্বামীর বিরোধ ছিল কি না, জানতে চাইলে আঁখি নূর আক্তার বলেন, সাইফুল ইসলাম একটি পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। বিরোধের বিষয়ে তার জানা নেই।

সোনারগাঁও থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম জানান, সকালে দীঘিতে লাশ ভেসে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। লাশ উদ্ধারের সময় সাইফুলের গলায় একটি পত্রিকার পরিচয়পত্র পাওয়া যায়। এ ঘটনায় আজ বেলা ৩টা পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

আরও খবর