সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত সাত নম্বর আসামি সাইদুল ইসলাম সিকদার সাকু আদালতে জামিন চেয়েছেন। তবে শুনানি শেষে আবেদস নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন। ভার্চুয়াল আদালত শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাষ্ট্র পক্ষের কৌঁসূলি অ্যাডভোকেট ফখরুদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, মিতু হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি সাইদুল ইসলাম সিকদার সাকু আদালতে মিস মামলা করে জামিন চেয়েছেন। আদালত শুনানি শেষ তা নামঞ্জুর করেন।

১২ মে মিতুর পিতা পাঁচলাইশ থানায় বাবুল আক্তারসহ ৮ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করলে ওই রাতেই রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রানীরহাট এলাকা থেকে সাইদুল ইসলাম সিকদার সাক্কুকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক সন্তোষ কুমার নাথ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করলে শুনানি শেষে ১৭ জুন তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন আদালত।

প্রসঙ্গত, ৫ জুন ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে খুন হন বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। এর পরপরই বাবুল আক্তার বাদি হয়ে পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের করেন। গত ১১ মে পিবিআই আদালতে মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেয়। পরদিন মিতুর পিতা সাবেক পুলিশ পরিদর্শক মোশাররফ হোসেন বাদি হয়ে বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি এবং তার সোর্স মুসা, ভোলাসহ মোট আটজনকে আসামি করে একই থানায় আরেকটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছে পিবিআই।

সাকুসহ এই মামলার অপর চার আসামি চট্টগ্রাম কারাগারে আছেন।

আরও খবর