আজ শুক্রবার (২০ আগস্ট) যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে পালিত হচ্ছে পবিত্র আশুরা। করোনার কারণে গত বছরের মতো এবারও আশুরায় তাজিয়া মিছিল, শোভাযাত্রা বন্ধ ঘোষণা করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

তবে শিয়া সম্প্রদায়ের মুসলমানরা সকাল থেকে পুরান ঢাকার ইমামবাড়া হোসেনি দালানে জড়ো হতে থাকেন। গেলো বছরে হোসেনি দালানের ভেতরেই মিছিল করেন শিয়া সম্প্রদায়। তবে এবার নিষেধাজ্ঞা ভেঙে সড়কে তাজিয়া মিছিল করতে দেখা গেছে।

৬১ হিজরি সালের মুহররমের ১০ তারিখে মহানবী (সা.)-এর প্রিয় দৌহিত্র ইমাম হুসাইনসহ (রা.) তাঁর পরিবার ও অনুসারীরা সত্য এবং ন্যায়ের পক্ষে যুদ্ধ করতে গিয়ে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শহীদ হন।

এ ঘটনা স্মরণ করে বিশ্ব মুসলিম যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করে থাকে। শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম ইসলামের মহান আদর্শকে সমুন্নত রাখতে তাদের এই আত্মত্যাগ মানবতার ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে রয়েছে। মূলতঃ এই শোক ও স্মৃতিকে স্মরণ করে সারা বিশ্বে মুসলমরা আশুরাকে ত্যাগ ও শোকের দিন হিসেবে পালন করেন।

সারা বিশ্বের মুসলমানরা নফল রোজা, কুরআন তিলাওয়াত, গরীব-অসহায়দের সহায়তাসহ নানা রকম পুণ্য কাজের মাধ্যমে পালন করেন। দেশে শিয়া সম্প্রদায় মুহররম মাসের প্রথম ১০ দিন শোক স্মরণে নানা কর্মসূচি পালন করেন।

তবে শোকের আবহে আশুরার দিনে তাজিয়া তারা বের করে। গত বছর থেকে করোনার কারণে বন্ধ রয়েছে। তবে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব অনুসরণপূর্বক আবশ্যক সকল ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান প্রতিপালিত হচ্ছে।

আরও খবর