কক্সবাজারের উখিয়ায় র‌্যাবের সাথে তথাকথিক বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের কলিম উল্লাহ (৩২) নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দুটি বন্দুক ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাবের দাবি কলিম উল্লাহ ডাকাত সর্দার ছিল। তার নিজস্ব একটি বাহিনী রয়েছে।

সোমবার (১৯ জুলাই) ভোররাতে কুতুপালংয়ের লম্বাশিয়া ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে। নিহত কলিম উল্লাহ লাম্বাশিয়া ক্যাম্পের মীর আহমেদের ছেলে।

র‌্যাব-১৫ এর উপ-অধিনায়ক তানভীর হাসান জানান, আমাদের কাছে খবর আসে কুতুপালং ক্যাম্প এলাকায় একটি রোহিঙ্গা ডাকাত দল অবস্থান করছে। এরপর আমরা অভিযানে যাই। আমাদের অবস্থান টের পেয়ে ডাকাত দল গুলিবর্ষণ করলে আত্মরক্ষার্থে আমরাও গুলি চালাই। গোলগুলি থামলে ঘটনাস্থল থেকে দুটি বন্দুক, চার রাউন্ড গুলি ও ডাকাত সর্দার কলিম উল্লাহর লাশ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে উখিয়া থা্নায় দুটি মামলা করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

চট্টগ্রাম বার্তা

আরও খবর