প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম, নায়িকা পরীমণি, প্রযোজক নজরুল রাজ, আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরসহ ১১ জনের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণাধীন বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

বুধবার (১১ আগস্ট) ব্যাংকগুলোতে চিঠি পাঠিয়ে এই তথ্য চাওয়া হয়েছে। চিঠি পাওয়ার তিন কর্ম দিবসের মধ্যে হিসাব দিতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ওই ১১ জনের নাম ও তাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের নামে কোনো হিসাব অতীতে অথবা বর্তমানে পরিচালিত হয়ে থাকলে সেই সব হিসাবের যাবতীয় তথ্য (যাবতীয় কাগজপত্রাদিসহ হিসাব খোলার ফর্ম, কেওয়াইসি, ট্রানজেকশান প্রোফাইল, শুরু থেকে হালনাগাদ লেনদেন বিবরণী) চাওয়া হয়েছে।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে গত ১৭ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে প্রায় ৬ ঘণ্টা আটকে রেখে রাতে শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পরদিন তাকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। এরপর ২৩ মে তার জামিন হয়।

চিত্রনায়িকা পরীমণি, প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ, আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত হেলেনা জাহাঙ্গীরসহ ১০ আসামির অপরাধলব্ধ কোনো আয় আছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

গত ২৯ জুলাই দিনগত রাতে রাজধানীর গুলশানের বাসায় অভিযান চালিয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে র‌্যাব। এ সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, ক্যাসিনো সামগ্রী এবং অবৈধভাবে সংরক্ষণ করা হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়। ১ আগস্ট মধ্যরাতে রাজধানীর বারিধারা এলাকা থেকে মাদকদ্রব্যসহ ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা এবং মোহাম্মদপুর থেকে ইয়াবাসহ মরিয়ম আক্তার মৌকে আটক করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

গত ৪ আগস্ট বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাঁকে আটক করে র‌্যাব। পরীমনির বাসা থেকে মদ ও মাদক উদ্ধারের কথা জানিয়েছে র‍্যাব। একই দিন রাতে প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে আটক করা হয়। এর আগের রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকা থেকে অস্ত্র, জালটাকা, মাদক এবং অশ্লীল ভিডিওসহ শরিফুল হাসান ওরফে মিশু হাসান ও তার সহযোগী মো. মাসুদুল ইসলাম ওরফে জিসানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

রোজিনা ইসলাম ছাড়া সবার মামলা সিআইডি তদন্ত করছে।

চট্টগ্রাম বার্তা/পিএ

আরও খবর