বন্ধুদের সঙ্গে গোসল করতে নেমে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে সমুদ্র সৈকতের সী-গাল পয়েন্টে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। এই সময় মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে তার আরও দুই বন্ধুকে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম তৌনিক মকবুল (২৪)। তিনি ব্র্যাক বিশ্বিবিদ্যালয়ের ঢাকা ক্যাম্পাসের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ৩য় বর্ষের ছাত্র। রাজধানীর শ্যামলীর আদাবরের মো. নুরুল আমিনের পুত্র নিহত তৌনিক।

মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার হওয়া নিহত মকবুলের বন্ধু সাকিব জানান, তৌনিক মকবুলসহ তারা তিন বন্ধু মঙ্গলবার বিকেলে কক্সবাজার ভ্রমণে আসেন এবং বুধবার দুপুরে সমুদ্র সৈকতের সী-গার্ল পয়েন্টে গোসল করতে নেমে ভেসে যান তারা। পরে তাদের ৩ জনকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করেন বিচকর্মীরা। ৩ জনকে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌনিক মকবুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) জিল্লুর রহমান বলেন, তিনবন্ধুর মধ্যে একজন মারা গেছেন। ঢাকার মোহাম্মদপুরের মৃত সাজিদুল করিমের ছেলে সোয়াদ আহমদ ইয়াছিন (২২) অসুস্থ অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন সেল) সৈয়দ মুরাদ ইসলাম বলেন, মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

এর আগে গত ২১ আগস্ট কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে বন্ধুদের সঙ্গে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন কক্সবাজার শহরের স্কুল শিক্ষার্থী ইরফানুল হক মাহির (১৪)। পরেরদিন (২২ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে সৈকতের কলাতলীর সায়মন পয়েন্টে ভেসে আসে তার মরদেহ।

আরও খবর