করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কার এবং প্রয়োগের মধ্যেও বৈশ্বিক এই মহামারি আক্রান্তের সংখ্যা ১১ কোটি ছাড়িয়ে গেল। যুক্তরাষ্ট্র ও বৃটেনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা উদ্বেগজনক। গত ২৪ ঘন্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৪২ হাজার ১৫১ জন এবং একই সময়ে মারা গেছেন ৯ হাজার ৭৭৭ জন।

করোনা সংক্রমণের তথ্য সরবরাহ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ কোটি ৩৫ হাজার ৭২৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৪ লাখ ২৯ হাজার ৮২২ জন। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৮ কোটি ৪৮ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯ জন।

করোনাভাইরাস মহামারিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর শীর্ষে আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ২ কোটি ৮৩ লাখ ৮১ হাজার ২২০ জন। করোনায় মৃত্যু বরণ করেছেন ৪ লাখ ৯৯ হাজার ৯৯১ জন। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৮৪ লাখ ৭৯ হাজার ৪১৮ জন। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে আমাদের প্রতিবেশী ভারত। এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৯ লাখ ৩৭ হাজার ১০৬ জন। করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪৯ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৬ লাখ ৪৪ হাজার ৮৫৮ জন। তৃতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৯৯ লাখ ২১ হাজার ৯৮১ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ২ লাখ ৪০ হাজার ৯৮৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ৮৮ লাখ ৮১ হাজার ১৯১ জন।

বাংলাদেশ আছে তালিকার ৩৩ নম্বর। দেশে এ যাবৎ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৪১ হাজার ৪৩৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ২৯৮ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৮৮ হাজার ৬২১ জন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে বাংলাদেশে গণ-টিকাদান শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশে টিকা নিয়েছেন প্রায় ১৩ লাখ ৬০ হাজার মানুষ। আর নিবন্ধন করেছেন প্রায় ২৩ লাখ।

আরও খবর