সবশেষ ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্ত হয়েছে তুলনামূলক কম— ৬১৬ জন মাত্র। মৃত্যুও হয়েছে অনেকটাই কম— মাত্র ৮ জন। যাদের ৩ জন চট্টগ্রাম নগরের এবং বাকি ৫ জন উপজেলার। তবে এদিনই চট্টগ্রাম ছুঁয়ে ফেললো মৃত্যুর এক ম্যাজিক ফিগার— ১১১১। চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে মৃতের মোট সংখ্যা এখন এটিই।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) পর্যন্ত সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৬১৬ জনের নমুনায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হলে চট্টগ্রামে মোট করোনারোগীর সংখ্যা চট্টগ্রাম জেলায় করোনাভাইরাসে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা এখন ৯৩ হাজার ৮৮৪ জন। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরের বাসিন্দা ৬৯ হাজার ৪১ জন এবং ১৪ উপজেলার ২৪ হাজার ৮৪৩ জন।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের রিপোর্টে বলা হয়েছে, নগরীর ১০টি ল্যাব ও এন্টিজেন টেস্টে গত ২৪ ঘন্টায় ২ হাজার ৫৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে নতুন করে ৬১৬ জন করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হন।

নতুন শনাক্তদের মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরে রয়েছে ৩৬৭ জন এবং ১৪ উপজেলায় ২৪৯ জন। উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে হাটহাজারীতে সর্বোচ্চ ৬৭ জন, রাউজানে ৩৬ জন, বোয়ালখালীতে ২৮ জন, সাতকানিয়ায় ২৪ জন, আনোয়ারায় ২৪ জন, পটিয়ায় ১৮ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ১২ জন, ফটিকছড়িতে ১০ জন, মিরসরাইয়ে ১০ জন, সীতাকুণ্ডে ৭ জন, চন্দনাইশে ৭ জন, বাঁশখালীতে ৪ জন এবং লোহাগাড়ায় ২ জন। এদিন সন্দ্বীপে কোনো রোগী মেলেনি।

ল্যাবভিত্তিক রিপোর্টে দেখা যায়, ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস ল্যাবে (বিআইটিআইডি) ৭৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় চট্টগ্রাম নগরের ৪৩ ও উপজেলার ৪৩ জন জীবাণুবাহক পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ২৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে নগরের ৮৬ জন ও উপজেলার ১৬ জনের শরীরে জীবাণুর উপস্থিতি চিহ্নিত হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৫৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় চট্টগ্রাম নগরের ৪০ ও উপজেলার ৪০ জন জীবাণুবাহক পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে নগরের ১০ জন ও উপজেলার ৮৮ জনের শরীরে জীবাণুর উপস্থিতি চিহ্নিত হয়।

অন্যদিকে ২৯২টি এন্টিজেন টেস্টে মহানগরের ১৯ জন ও উপজেলার ৪২ জন মিলিয়ে মোট ৬১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এছাড়া কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৪১টি নমুনার মধ্যে সবগুলোরই ফলাফল এসেছে নেগেটিভ।

এদিকে বেসরকারি ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরির মধ্যে আগ্রাবাদের মা ও শিশু হাসপাতালে ৫৯টি নমুনায় চট্টগ্রাম নগরের ৯ ও উপজেলার ৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। বেসরকারি শেভরন ল্যাবে ২০৭টি নমুনার মধ্যে উপজেলার ২টিসহ ৩১টি নমুনার ফলাফল পজিটিভ আসে।

এছাড়া বেসরকারি মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ৩৫টি নমুনায় চট্টগ্রাম নগরের ১৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। ইপিক হেলথ কেয়ারে ২১৩টি নমুনায় চট্টগ্রাম নগরের ৮৫ ও উপজেলার ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৪০টি নমুনায় চট্টগ্রাম নগরের ২০ জনের শরীরে করোনা চিহ্নিত হয়েছে।

আরও খবর